সর্বাধুনিক নেটওয়ার্কের আওতায় শাবি

0
4

দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে প্রথমবারের মতো ইন্টারনেটভিত্তিক আইপি অ্যাড্রেসের সর্বাধুনিক ভার্সন আইপিভি-৬-এ যুক্ত হয়েছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবি)।

শনিবার থেকে আইপিভি-৪-এর পাশাপাশি পুরো ক্যাম্পাসের নেটওয়ার্ক আইপিভি-৬-এর আওতায় আনা হয়েছে।

এর ফলে গবেষণা থেকে শুরু করে শিক্ষা ও প্রযুক্তিসংক্রান্ত কাজে আরও একধাপ এগিয়ে যাবে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা, এমনটিই মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

রোববার যুগান্তরকে এ তথ্য জানান বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার এন্ড ইনফরমেশন সেন্টারের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক অধ্যাপক ড. শহীদুর রহমান।

তিনি জানান, আইপিভি-৪ থেকে আইপিভি-৬-এ সংযুক্ত হওয়ার ফলে আমাদের ক্ষেত্র আরও প্রসারিত হবে। প্রথমবারের মতো পুরো ক্যাম্পাস এ নেটওয়ার্কের আওতায় আনা দেশের অন্যান্য ক্যাম্পাসের জন্য অনুসরণীয় হতে পারে বলে মনে করেন তিনি।

অধ্যাপক ড. শহীদুর রহমান জানান, গবেষকদের গবেষণায় বেশ প্রভাবক হিসেবে কাজ করবে এই উন্নীতকরণ। এ ছাড়া প্রযুক্তির দুনিয়ায় এই নেটওয়ার্ক সামনের সময়গুলোতে অত্যাবশ্যকীয় হয়ে উঠবে যার পূর্বপ্রস্তুতি হিসেবে শাবি এই নেটওয়ার্ক স্থাপন করেছে।

কম্পিউটার এন্ড ইনফরমেশন সেন্টারের আইটি ম্যানেজার মো. এএসএম খায়রুল আক্তার চৌধুরী জানান, আইপিভি-৬-এর ফলে আগের থেকে তুলনামূলকভাবে ইন্টারনেটের গতি বাড়বে। এ অ্যাড্রেসের আওতায় আসায় সেন্সর এবং আইওটি রোবোটিকভিত্তিক বিভিন্ন প্রজেক্টের আইপি অ্যাড্রেস নিয়ে সমস্যা হবে না।

তিনি বলেন, এ সিস্টেমে যুক্ত হওয়ার ফলে লিংকডিন, গুগল, টুইটার, ফেসবুকসহ বিভিন্ন বিখ্যাত প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান যারা আইপিভি-৬ সিস্টেম ব্যবহার করে, সে সাইটগুলো অনেক বেশি গতিতে ব্যবহার করা যাবে।

উল্লেখ্য, ইন্টারনেটে দুনিয়ার তথ্য এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় গ্রহণ এবং প্রেরণ করার জন্য একটি নির্দিষ্ট ঠিকানা বা আইপি অ্যাড্রেসের প্রয়োজন হয়। বর্তমানে আইপিভি-৪ এবং আইপিভি-৬ নামক দুইটি আইপি অ্যাড্রেস ব্যবহার করা হয়। আর বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে শাবিই প্রথম এ সিস্টেমের আওতায় আসল।