বায়ুদূষণে ভয়াবহ শরীরিক ক্ষতি, কী করবেন?

0
2

রাজধানীতে বেড়েছে বায়ুদূষণ। শীতে বৃষ্টি কম হওয়ার কারণে বছরের অন্য সময়ের চেয়ে বায়ুদূষণের পরিমাণ বাড়ে। বায়ুদূষণের ফলে শ্বাসকষ্ট, ঠাণ্ডা-কাশিসহ বিভিন্ন ধরনের রোগ হয়ে থাকে।

বিশ্বের বায়ুদূষণের দিক দিয়ে রাজধানী ঢাকা অন্যতম। যানবাহন ও কলকারখানার ধোঁয়া, নির্মাণকাজ, খোঁড়াখুঁড়িসহ বিভিন্ন কারণে বায়ুদূষণ বাড়ছে।

এ ছাড়া ত্রুটিযুক্ত যানবাহন ও কলকারখানার ধোঁয়ার সঙ্গে কার্বন-ডাইঅক্সাইড, কার্বন মনোঅক্সাইড, নাইট্রোজেন অক্সাইড, সালফার-ডাইঅক্সাইড, অ্যালডিহাইডসহ সিসার নিঃসরণ বাতাসে মিশছে।

বায়ুদূষণের কারণে ক্যান্সারে আক্রান্ত ঝুঁকি বেড়েছে। এ ছাড়া অ্যাজমা (হাঁপানি), ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি রোগ (সিওপিডি), ফুসফুসের ক্যান্সারসহ মারাত্মক সংক্রামক রোগে আক্রান্ত হওয়ার হার বেড়ে গেছে।

আসুন জেনে নিই বায়ুদূষণ থেকে বাঁচতে যা করবেন?

১. বাইরে গেলে সঠিক মাস্ক ব্যবহার করুন। আমরা সাধারণত গেঞ্জির কাপড় ও সার্জিক্যাল মাস্ক ব্যবহার করি। ফিল্টারযুক্ত মাস্কে বা প্যাকেটের গায়ে এর কার্যকারিতার মাত্রা লেখা থাকে এমন মাস্ক ব্যবহার করা ভালো।

২. বাইরে থেকে ঘরে ফেরার পর কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ–হাত ধুয়ে নিন অথবা গোসল করতে পারেন। এ ছাড়া গরম পানিতে কয়েক ফোঁটা ইউক্যালিপটাস তেল দিয়ে ভাপ নিলে শ্বাসতন্ত্র পরিষ্কার হয়। আদা ও তুলসীপাতার চাও শ্বাসতন্ত্র পরিষ্কারে সহায়ক।

৩. সকালে ও দুপুরে বায়ুদূষণের মাত্রা বেশি থাকলেও বিকাল ও সন্ধ্যায় কম থাকে। এ সময় বাড়ির দরজা–জানালা খুলে দিন।

৪. বায়ুদূষণের ক্ষতিকর প্রভাব কমাতে ভিটামিন সিসমৃদ্ধ ফলমূল বা শাকসবজি খেতে পারেন।